নির্বাচিত কলাম

আশরাফুল ভিক্ষুক না নষ্ট সুশীল সমাজ

আশরাফুল ভিক্ষুক না নষ্ট সুশীল সমাজ

আশরাফুলের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ এর চানপুর এলাকায় ওর ভাষ্যমতে। থাকে বারইয়ারহাট আল-আমিন হোটেল এর পেছনে শাহ আলম হাজ্বীর ভাড়া বাসায়। বয়স ৭ কিংবা ৮ বছর। সকালে ঘুম থেকে উঠেই প্লাস্টিক বোতল এসব খুঁজতেই বেড়িয়ে পরে।বাবলুর ভাঙ্গারি দোকানে সাদা বোতল প্রতি কেজি ২০ টাকা, টাইগারের বোতল ১০ টাকা, লিচুর বোতল ৫০ টাকা দরে বিক্রি করে আশরাফুল। এসব আগে নিজের ঘরে জমিয়ে তারপর বিক্রির কাজ করে। মা কাজ করে ডেকোরেশনেনে বিয়ে কিংবা কোনো সামাজিক অনুষ্ঠানে। ছোট একটা ভাই আছে নাম সোহাগ।বয়স ৩ বছর। বেশ সাবলীল ভাষায় আমার প্রশ্নের উত্তর দিয়ে যাচ্ছিলো। ও আচ্ছা আশরাফুলের বাবা নেই। বছর তিনেক আগে স্ট্রোক করে মারা গেছেন তিনি। মূলত বাবার সূত্রে আশরাফুলদের মিরসরাইয়ে যাত্রা। বাবা বারইয়ারহাট পৌরসভায় কাজ করতো। সেই সুবাদে এখানে ভাড়া নিয়ে থাকতেন। কিন্তু বাবা এখন তাদের মাঝে নেই। জীবন সংগ্রামের স্থান মিরসরাইকে বেছে নিলেন তারা। ঈদে জামা ন
রাজনীতির ভালো মানুষ ‘ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন’

রাজনীতির ভালো মানুষ ‘ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন’

এনায়েত হোসেন মিঠু::: জীবন যখন সুদীর্ঘ পথ পরিক্রমা। এ পরিক্রমায় কিছু কিছু মানুষ নিজের কর্মগুনে খ্যাতির চূড়ায় আরোহন করেন। নিজের সততা, সাহস আর বুদ্ধিমত্মা দিয়ে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিতে পরিণত হন। সেবা ও ত্যাগের মহিমায় নিজেকে উজাড় করে দিয়ে একজন সমাজহৈতিষি মানুষে রূপান্তর হন। ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি তাদেরই একজন। যিনি তাঁর দীর্ঘ জীবনে দেশ, মানুষ আর আদর্শের প্রতি অবিচল থেকেছেন। কখনো প্রশ্রয় দেননি শঠতা, প্রতারণা আর ভন্ডামীকে। আশ্রয় দেননি অন্যায়কারী, সন্ত্রাসী আর দেশদ্রোহীদের। সবসময় নিজগুনে ভালোবেসে গেছেন আদর্শ আর মহানুভবতাকে। মহান এ মানুষটির জীবনের সংক্ষিপ্ত রূপ তুলে ধরতে আমার এ লেখা। তথ্য বিভ্রাট কিংবা অজানা ভুলের জন্য প্রারম্ভেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। ছয় দফা দাবি নিয়ে তদানিন্তন পশ্চিম পাকিস্তানীদের বিরুদ্ধে যখন সমগ্র পূর্ব পাকিস্তান উত্তাল ঠিক তখনি লাহোর ইসলামীয়া কলেজের ছাত্র ইঞ্জ
খালেদা জিয়ার ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ এবং বিএনপির ভারতযাত্রা

খালেদা জিয়ার ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ এবং বিএনপির ভারতযাত্রা

বিভুরঞ্জন সরকার ::: রাজনীতির ময়দানে খুব সক্রিয় না থাকলেও ব্যাপকভাবেই আলোচনায় আছে বিএনপি। সরকারের সঙ্গে, সরকার দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে রাজনৈতিক প্রতিযোগিতায় পেরে না ওঠে বিএনপি এখন অন্য কৌশল নিয়ে অগ্রসর হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। বিএনপি চায় সরকারকে দুর্বল করতে, জনবিচ্ছিন্ন প্রমাণ করতে। আর, সরকার চাইছে বিএনপিকে অকার্যকর করতে, মানুষের মন থেকে বিএনপির নাম মুছে দিতে। কিন্তু বিএনপির কৌশল হলো, ‘...তবু আমারে দেবো না ভুলিতে' । বিএনপি সংসদে নেই। রাজপথে নেই, আন্দোলনে নেই। বিএনপি আছে নয়াপল্টনে, গুলশানে আর প্রেসক্লাবে। আছে গণমাধ্যমে, এমনকি আওয়ামী লীগ নেতাদের মুখে মুখেও বিএনপি আছে, এবং বেশ ভালোভাবেই আছে। বিএনপি সম্ভবত এভাবে থাকারই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কাজের কাজ কিছু না করেও আলোচনায় থাকার যেসব উপায় দলটি বের করছে, কৌশল হিসেবে তা খারাপ নয়। সম্প্রতি বিএনপি আলোচনায় আছে তিন বিষয়ে – ১. কারাগারে দলীয় প্রধান খালেদা জিয়া
সত্তর দশকের গ্রামের রোজা ও ঈদ

সত্তর দশকের গ্রামের রোজা ও ঈদ

শাহ আলম নিপু ::: ঈদ মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান। বিশেষ করে ঈদ-উল ফিতর বা রমজানের ঈদ। দীর্ঘ ৩০ দিন সিয়াম সাধনার পর আসে এ পবিত্র ঈদ। বলা যায় এ ঈদের মানসিক প্রস্তুুতি শুরু হয় সে প্রথম রমজান থেকেই। বড়রা পুরো রমজান মাসে রোজা রেখে আখেরাতে তার সওয়াবের পাল্লা ভারী করার জন্য যথাসম্ভব নামাজ-দোয়া করে, এবাদতে ব্যস্ত থাকেন পুরো মাস। পাশাপাশি ছোটরাও চেষ্টা করে তার আনন্দের ঈদকে অর্থবহ ও নিজের সওয়াবের পাল্লা ভারী করতে। অতি অল্প বয়স থেকে ছোটরাও চেষ্টা করে রোজা রাখতে। প্রথম বছর অনন্ত প্রথম রোজাটা যেন রাখা যায়। তারপরের বছর থেকে প্রথম, সাতাশ এবং শেষ রোজা। ক্রমান্বয়ে যোগ হয় শুক্রবারের রোজাও। পরবর্তীতে ছোটদের মধ্যে প্রতিযোগিতা হয় কে কয়টা রোজা রাখতে পারে তা নিয়ে। ঈদের দিন সকালে চলে নিজেদের মধ্যে তার হিসেব নিকেশ। বাবা মারাও সহযোগীতা করেন ছোটদের রোজা রাখার এ প্রতিযোগীতাকে। এভাবে একসময় তারা পুরো রোজার মাস
তাদের ঈদ আনন্দ ফুটপাতে

তাদের ঈদ আনন্দ ফুটপাতে

মুুহাম্মদ দিদারুল আলম ::: এক. প্রতিদিনই অন্যের জমিতে কামলা দেওয়া কিংবা ভ্যানগাড়ী ঠেলা অথবা রিকসার প্যাডেল ঘুরানোই তাদের পেশা। অনেক কষ্টে সংসার চালাতে হয়। তারপরেও সংসারে সদস্য মা বাবা স্ত্রী সন্তানসহ সাত আটজনে গিয়ে ঠেকে। প্রত্যেকই তার আয়ের ওপর নির্ভর করে দুমুঠো খেয়ে বেঁচে আছে। জীবন চক্রের নিয়মে জীবন চলে, তারই মধ্যে চলে আসলো রমজান মাস। রমজান মাসে যদিও কোন কোন শ্রমিকের কাজ কাম কম তার পরেও খরচটাও একটু বেশি মনে হয়। রমজান হতে না হতেই এসে পড়ে ঈদ। মাথায় পড়ে বাজ, চোখে মুখে কষ্টের চাপ। চিন্তা যদিও মনে মনে করে বুকে আশা ঈদের দিন বাবা মা স্ত্রী সন্তানদের কিছু নতুন পোশাক কিনে দেওয়ার। তাই কেউ কেউ প্রতিদিন কাজ করতো আর সেই মজুরির টাকা সংসার খরচ করে কিছু রেখে দিতো। দুই. ঈদকে সামনে রেখে সন্তানদের ঈদ পোশাক কেনার জন্য প্রায় সময় বিভিন্ন দোকানে ঘুরা ঘুরি করতো করিম মিয়া। কিন্তু বড় বড় দোকানে অনেক সুন্দর
হযরতুল আল্লামা আলহাজ্ব মাওলানা মেশকাত উদ্দীন (রঃ)

হযরতুল আল্লামা আলহাজ্ব মাওলানা মেশকাত উদ্দীন (রঃ)

মুহাম্মদ ফয়েজ উল্লাহ ::: মানুষ মরনশীল। মানুষকে মৃত্যুর সাথে আলিঙ্গন করতে হবে। এটাই এই সুন্দর পৃথিবীর বাস্তবতা। কেউ এখানে চির দিন থাকতে পারবেনা। শত চেষ্টা করেও কেউ অনন্ত কাল বেঁচে থাকতে পারবেনা। এই উপলব্ধি প্রত্যেক মানুষের আছে। তথাপি বেঁচে থাকার তাড়না প্রত্যেকে অনুভব করে। এই পৃথিবীতে এমন কিছু মানুষ জন্মে যাদেরকে যুগ যুগ ধরে স্মরণ করে। কর্মের মাধ্যমে অন্যান্য মানুষের জন্য অনুকরনীয় অনুস্মরণীয় হয়ে থাকে। এ ধরনের ব্যক্তিত্ব ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রেরনা যোগায়। আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামীন তার এবং তাঁর প্রিয় হাবীব (দঃ) এর শিক্ষাকে পৃথিবীর মানুষের কাছে সুবিন্যস্ত ভাবে ব্যাখ্যা করার জন্য কিছু মানুষকে যোগ্যতা দান করেন। তাঁরা আল্লাহ পাকের প্রদত্ত যোগ্যতাবলে ইসলামের শিক্ষাকে সমুন্নত রাখতে কঠোর সংগ্রাম করেন। এ সকল সংগ্রামী মহা পরুষদের মধ্যে একজন হলেন প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন হযরতুল আল্লামা আলহাজ¦ মাওলানা মে
যাকাত, সাদকায়ে ফিতর এবং ঈদুল ফিতর প্রসঙ্গ

যাকাত, সাদকায়ে ফিতর এবং ঈদুল ফিতর প্রসঙ্গ

সাইফুল হক সিরাজী::: সদকা সমূহ একমাত্র প্রাপ্য ফকির ও মিসকিনদের, আর যে সকল কর্মচারী এসব সদকার কাজে নিয়োজিত এবং যাদের মন রক্ষা করা আবশ্যক এবং ক্রীতদাসদের মুক্ত করার জন্য এবং ঋণগ্রস্থদের ঋণ পরিশোদের জন্য মুজাহিদ ও মুসাফিরদের জন্য এ ব্যবস্থা আল্লাহর পক্ষ থেকে নির্ধারিত এবং আল্লাহ অতি জ্ঞানী, অত্যন্ত ব্যয় করা অসঙ্গত তা নিয়ে উত্তমরূপে অবগত আছেন, (সুরা তাওবা-আয়াত নং-৬০)। উপরোক্ত আয়াতে যাকাত ব্যয়ের ৮টি খাতের কথা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে। উল্লিখিত খাত ছাড়া অন্য কোথাও যাকাত দিলে তা আদায় হবে না। যাকাত ফরজ হওয়া সত্ত্বেও যদি যাকাত আদায় না করা হয় তাদের জন্য রয়েছে বেদনাদায়ক আজাব (সুরা তাওবা) যাকাত আরবী শব্দ, অর্থ পবিত্র করা, বৃদ্ধি প্রাপ্ত হওয়া। যাকাত তার দাতাকে পাপ ও কৃপনতা থেকে পবিত্র করে। সম্পদের কিয়দংশ ব্যয় দ্বারা অবশিষ্ট সম্পদ পবিত্র হয়। যাকাত দ্বারা সম্পদের বরকত হয়, যাকাত প্রদানে সম্পদক হ
ট্রাম্প-কিমের সিঙ্গাপুর বৈঠক কতটা সফল?

ট্রাম্প-কিমের সিঙ্গাপুর বৈঠক কতটা সফল?

আনিস আলমগীর ::: তারা পরস্পরকে গালি দিয়েছেন ক’দিন আগেও। পারমাণবিক বোমার বোতাম টিপে একে অন্যের দেশ ধ্বংস করার হুমকিও দিয়েছেন। কিন্তু আজ মঙ্গলবার (১২ জুন) হাসি হাসি মুখে সিঙ্গাপুরের সেন্টোসা দ্বীপের পাঁচতারা হোটেল ‘ক্যাপেলায়’ উভয়ে ঐতিহাসিক বৈঠক করেছেন। এতারা পরস্পরকে গালি দিয়েছেন ক’দিন আগেও। পারমাণবিক বোমার বোতাম টিপে একে অন্যের দেশ ধ্বংস করার হুমকিও দিয়েছেন। কিন্তু আজ মঙ্গলবার (১২ জুন) হাসি হাসি মুখে সিঙ্গাপুরের সেন্টোসা দ্বীপের পাঁচতারা হোটেল ‘ক্যাপেলায়’ উভয়ে ঐতিহাসিক বৈঠক করেছেন। এতারা পরস্পরকে গালি দিয়েছেন ক’দিন আগেও। পারমাণবিক বোমার বোতাম টিপে একে অন্যের দেশ ধ্বংস করার হুমকিও দিয়েছেন। কিন্তু আজ মঙ্গলবার (১২ জুন) হাসি হাসি মুখে সিঙ্গাপুরের সেন্টোসা দ্বীপের পাঁচতারা হোটেল ‘ক্যাপেলায়’ উভয়ে ঐতিহাসিক বৈঠক করেছেন। এতারা পরস্পরকে গালি দিয়েছেন ক’দিন আগেও। পারমাণবিক বোমার বোতাম টিপে একে অন্যের
সদকাতুল ফিতরের গুরুত্ব ও ফজিলত

সদকাতুল ফিতরের গুরুত্ব ও ফজিলত

মুফতি মুহাম্মাদ যুবাইর খান ::: আজ বুধবার, পবিত্র মাহে রমজানের ২৭তম দিন। আর নাজাতের দশকের সপ্তম দিন। দেখতে দেখতে আমরা একেবারে রমজানের শেষপ্রান্তে এসে পৌঁছে গেছি। আর মাত্র ২-৩ দিন বাকি আছে। এরপরই আসছে ঈদুল ফিতর। আর ঈদুল ফিতরের দিনের অন্যতম আমল হলো সদকাতুল ফিতর। ইসলামে সদকাতুল ফিতরের গুরুত্ব অপরিসীম। এটি জাকাতেরই একটি ধরন। রাসুল (সা.) হাদিস ও সুন্নাহ তা আদায়ের তাগিদ করেছেন এবং এর নিয়ম-নীতি শিক্ষা দিয়েছেন। এ কারণেই রাসুলের যুগ থেকে আজ পর্যন্ত মুসলিম উম্মাহ ইসলামের পাঁচ রোকন ও দ্বীনের অন্যান্য মৌলিক আমল ও ইবাদতের মতো সদাকাতুল ফিতরও নিয়মিত আদায় করে আসছে। আমাদের এ অঞ্চলে তা ‘ফিতরা’ নামে পরিচিত। ঈদের আনন্দে যেন মুসলিম জাতির প্রতিটি সদস্য শরিক হতে পারে এ জন্য ফিতরা ওয়াজিব করা হয়েছে। এতে রোজার ত্রুটি-বিচ্যুতিও পূরণ হয়ে যায়। একটি হাদিসে এসেছে, হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণি
লাইলাতুল কদর ও ই’তিকাফ

লাইলাতুল কদর ও ই’তিকাফ

মুফতী আজিজুল হক ইয়াকুবী ::: পবিত্র মাহে রমজানের দ্বিতীয় দশকও বিদায় নিল। শুরু হয়েছে শেষ দশক। এ দশক হলো জাহান্নাম থেকে মুক্তির। জাহান্নাম থেকে মুক্তির জন্য মুমিনের হৃদয় এখন আকুল হয়ে আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ করছে। সফল নামাজ ও তাওবার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাচ্ছে মুমিনরা। কারণ, রমজান পেয়েও ক্ষমা না পাওয়া সত্যি হতভাগা হওয়া। প্রিয় নবী (সাঃ) বলেন, যারা রমজান মাস পেয়েও নিজেকে পাপমুক্ত করতে পারল না, তারা ধ্বংস প্রাপ্ত।’ পবিত্র এ মাসের শেষ দশকেই রয়েছে বছরের শ্রেষ্ঠ রাত। যে রাতে বান্দার গুনাহ ক্ষমা করানোর অপার সুযোগ রয়েছে। এ রাত সারা বছরের সমস্ত রাত অপেক্ষা সর্বাধিক মর্যাদাশীল, বৈশিষ্ঠ্যমণ্ডিত ও মহিমান্বিত বলে এ রাতের নামকরণ করা হয়েছে লাইলাতুল ক্বদর। এ রাতের মর্যাদা এতই বেশি যে এর মর্যাদা বর্ণনা করে একটি পূর্ণ সুরা নাজিল করেছেন আল্লাহ তায়ালা। প্রিয় নবী (সাঃ) বলেন, যখন লাইলাতুল ক্বদর উপস্থিত হয়
error: Content is protected !!