লঙ্কা সফরে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

লঙ্কা সফরে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

স্পোর্টস ডেস্ক :::

প্রথম ম্যাচে হারলেও তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে তৃতীয় আন-অফিসিয়াল ওয়ানডেতে মাঠে নেমেছিল মোহাম্মদ মিঠুনের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ফাইনালের আবহে ঘেরা এই ম্যাচে বৃষ্টি আইনে লঙ্কানদের ৯৮ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। তিন ম্যাচের সিরিজ জিতেছে ২-১ ব্যবধানে। এর আগে মুমিনুলের নেতৃত্বে মিরাজ-সৌম্যরা দুটি চার দিনের টেস্ট সিরিজ ড্র করেছিল।

কলম্বোয়ায় আগে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ ‘এ’ দল ৯ উইকেট হারিয়ে তোলে ৩২২ রান। সেঞ্চুরি করেন ওপেনার সাইফ হাসান। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম টানা দ্বিতীয় ফিফটির দেখা পান। ৩২৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল ২৪.৪ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৩০ রান। এরপর বৃষ্টি নামলে আর বল মাঠে গড়াতে পারেনি। বৃষ্টি আইনে লঙ্কানদের টার্গেট নেমে আসে ২২৯ রানে।

সাইফ হাসান করেন ১১৭ রান। তার ১১০ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল ১২টি চার আর তিনটি ছক্কার মার। মোহাম্মদ নাঈম করেন ৭৬ বলে ৬৬ রান। তার ইনিংসে পাঁচটি বাউন্ডারির পাশাপাশি ছিল দুটি ছক্কা। এই ওপেনিং জুটিতে আসে ১২০ রান। তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত ২, এনামুল হক বিজয় ১৫ রান করে বিদায় নেন।

দলপতি মোহাম্মদ মিঠুন করেন ৩২ রান। আফিফ হোসেন ধ্রুব ১২, নুরুল হাসান সোহান ১৭, আরিফুল হক ৬, আবু হায়দার রনি ৮, সানজামুল ইসলাম ১২* আর এবাদত হোসেন ৩* রান করেন।
লঙ্কানদের হয়ে শিহরান ফার্নান্দো ১০ ওভারে ৫০ রান দিয়ে তুলে নেন চারটি উইকেট। ১০ ওভারে ৬৯ রান খরচায় তিনটি উইকেট পান বিশ্ব ফার্নান্দো। একটি উইকেট পান আমিলা অপোনসো।

৩২৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় লঙ্কানরা। আফিফ হোসেন ফিরিয়ে দেন ৬ রান করা ওপেনার পাথুম নিশানকাকে। ১৮ রান করা আরেক ওপেনার সানদুনকে বোল্ড করেন আবু হায়দার। দলীয় ২৭ রানে দুই ওপেনারকে হারানোর পর দলকে টানতে থাকেন কামিন্দু মেন্ডিস এবং দলপতি আশান প্রিয়াঞ্জন। কামিন্দু মেন্ডিস ৫৫ আর প্রিয়াঞ্জন ৩৪ রান করেন। পেরেরা ৭, বান্দারা ৬ রান করে বিদায় নেন। ২৪.৪ ওভারে ৬ উইকেটে লঙ্কানরা তোলে ১৩০ রান (বৃষ্টি আইনে টার্গেট দাঁড়ায় ২২৯ রান)।

বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে দুটি করে উইকেট তুলে নেন এবাদত হোসেন এবং সাইফ হাসান। একটি করে উইকেট পান আবু হায়দার, আফিফ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!