১২৫ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিল শান্তিনীড়

১২৫ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিল শান্তিনীড়

মুহাম্মদ দিদারুল আলম ::
সরকারের পাশাপশি শান্তিনীড়ের মত সামাজিক সংগঠনগুলো আরো এগিয়ে এলে মিরসরাইয়ে শিক্ষা, পরিবেশ ও সামাজিক উন্নয়নে আমরা আরো এগিয়ে যাবো। তাই আমি মনে করি আজকের অনুষ্ঠানে যারা পৃষ্ঠপোষক আছেন এবং অন্যান্য সংগঠনের যে সকল নেতৃবৃন্দ আছেন সবাই এগিয়ে আসবেন।

সোমবার (৬ মে ) বিকালে মিরসরাই উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে স্বেচ্ছাসেবী সমাজ উন্নয়ন সংস্থা শান্তিনীড়ের ১২তম শিক্ষোন্নয়ন বৃত্তির সনদ ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন, মিরসরাই ইকোনমিক জোন-১ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব রহমান রুহেল।

এসময় তিনি আরো বলেন, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন মিরসরাইকে নিয়ে যে স্বপ্ন দেখে ছিলেন আমরা তা বাস্তবায়নের পথে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছি। দেশের বৃহত্তর অর্থনৈতিক অঞ্চল হচ্ছে আমাদের মিরসরাইতে। এখানেই কর্মসংস্থান হবে লক্ষ লক্ষ মিরসরাইবাসীর, এজন্য আমাদেরকে আরো শিক্ষার হার বাড়াতে হবে, হতে হবে দক্ষ।
প্রধান অতিথি বলেন, উন্নয়নের পাশাপাশি গাছ লাগানো, পরিবেশের দূষণ কমানোর জন্য সামাজিক সংগঠনগুলোকে ভূমিকা রাখতে হবে। এছাড়া মাদক থেকে দূরে রাখতে হবে আগামী প্রজন্মকে তাহলেই আমাদের মিরসরাইয়ের পরিবেশ আরো সুন্দর হবে।

সংস্থার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ উদ্দিন সোহেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন। এবং প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন কাস্টমস এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট বিভাগ বান্দরবানের বিভাগীয় কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম চৌধুরী।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাহিত্যিক আবদুল কাইয়ুম নিজামী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য শেখ আতাউর রহমান, মুরাদপুরস্থ সমাজসেবা কার্যালয়ের পিএইচটি সেন্টারের তত্ত্বাবধায়ক সহকারী পরিচালক মোঃ জসীম উদ্দিন, মিরসরাই ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ নুরুল আবছার দুলাল, বারইয়ারহাট পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন ভিপি, মিরসরাই পৌর মেয়র গিয়াস উদ্দিন, মিরসরাই উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌস হোসেন আরিফ, বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান এম আলাউদ্দিন, ৮নং দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম খোকা, মিরসরাই সমিতি ইউএই এর সভাপতি মোঃ নুরুল আলম, কেরাণীবাড়ী পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ফজলুল করিম লিটন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুভাষ সরকার, শান্তিনীড় পৃষ্ঠপোষক ইউএই প্রবাসী শেখ মুসলিম উদ্দিন মিলন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু, শিক্ষক হোসাইন সবুজ, নির্বাণ সংঘের সভাপতি তানভীর আহমদ, সমমনা সংঘের সহ-সম্পাদক নুরুদ্দীন, আদর্শ বন্ধু ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দীন মোহাম্মদ, অদম্য-২০০৫ এর সভাপতি নিয়াজ মুহাম্মদ সাজেদ, দক্ষিণ আমবাড়ীয়া সমাজ কল্যাণ সংঘের আজিজুল হক, প্রজন্ম মিরসরাই সাবেক সভাপতি রাজীব দাশ, মধ্যম আমবাড়ীয়া সমাজ কল্যাণ সংঘের আলতাফ হোসাইন, তাইফা’র সম্পাদক হারুন অর রশিদ, সৃজন সংঘের আসিফুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় ১২তম শান্তিনীড় শিক্ষোন্নয়ন বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মিরসরাই, সীতাকুন্ড ও ছাগলনাইয়া উপজেলার ১ম থেকে ১০ম শ্রেণির ১২৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর হাতে প্লাটিনাম, গোল্ড, সিলভার ও ব্রোঞ্জ চার ক্যাটাগরিতে সনদ, ক্রেষ্ট, নগদ প্রাইজ বন্ড ও শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন অতিথিরা। এছাড়াও বারইয়ারহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক স্বপ্না রাণী সেনকে শিক্ষক সম্মাননা, শান্তিনীড়ের ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠ সংগঠক ইসমাঈল হোসেন খোকন এবং নবাগত শান্তিনীড়ের পৃষ্ঠপোষকদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন শান্তিনীড় সহসভাপতি মুহাম্মদ দিদারুল আলম, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ সবুজ সেন, শিক্ষা সম্পাদক মৃদুল চন্দ্র দাশ, তথ্য সম্পাদক মাঈন উদ্দিন, শান্তিনীড় সদস্য আবু বক্কর রিশাত, ফজলুল করিম, এম মাঈন উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান বাবলু, জামাল উদ্দিন শাহীন, রায়হান চৌধুরী, ইসমাঈল হোসেন খোকন, আলী জাবের, ফাহাদ বিন মহিব, মাঈন উদ্দিন, সৌরভ, মোঃ ইউসুফ, আকতার হোসেন, ইয়াছিন শরীফ, বাবলু দে, শওকত হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন, ইমাম হোসেন, আবদুর রহিম বিশ্বাস, আজিম উদ্দিন, আজিজ আজহার, মনজুরুল কাদের মিরাজ, কামরুল ইসলাম, আবদুল মান্নান, আবু সাঈদ, কফিল উদ্দিন তুহিন, শায়েস্তা খান পিয়ান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৩ নভেম্বর মিরসরাই, সীতাকুন্ড ও ছাগলনাইয়া উপজেলার ১ম থেকে ১০ শ্রেণির ১৯৮৪ জন শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে ১২তম শিক্ষোন্নয়ন বৃত্তি ৩টি পরীক্ষা কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষোন্নয়ন বৃত্তি ছাড়াও শান্তিনীড় প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের সামাজিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!