হিন্দু পুরুষদের উচিত মুসলিম নারীদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করা: বিজেপি নেত্রী

হিন্দু পুরুষদের উচিত মুসলিম নারীদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করা: বিজেপি নেত্রী

অনলাইন ডেস্ক :::

মুসলিম বিদ্বেষী বক্তব্যে ভারতীয় জনতা পার্টি-বিজেপির নেতাদের চেয়ে কম যান না দলটির নেত্রীরাও। এবার মুসলিম নারীদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করার উস্কানি দিয়েছেন হিন্দুত্ববাদী দলটির মহিলা মোর্চার এক নেত্রী।

ফেসবুক এমন পোস্টে দেওয়ায় অবশ্য সুনীতা সিং গৌড় নামের ওই নেত্রীকে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় জানায়, ফেসবুকে ওই পোস্টটি দেওয়ার পরই তা ভাইরাল হয়ে যায়। কড়া সমালোচনায় মুখর হয় নেটিজেনরা। শেষ পর্যন্ত চাপে পড়ে সুনীতাকে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

উত্তরপ্রদেশের রামকোলার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী সুনীতা ফেসবুকে লেখেন, “মুসলিমদের জন্য একটাই সমাধান রয়েছে। হিন্দু ভাইদের ১০ জন করে দল তৈরি করে মুসলিম মা-বোনদের প্রকাশ্য রাস্তায় গণধর্ষণ করা উচিত। এরপর সবাইকে দেখানোর তাদের বাজারের মাঝখানে ঝুলিয়ে দেওয়া উচিত।”

এখানেই না থেমে তিনি আরও বলেন, “মুসলিম মা-বোনেদেরও উচিত নিজেদের সম্ভ্রম লুট করতে দেওয়া। কারণ দেশকে রক্ষা করতে এছাড়া আর অন্য কোনো উপায় নেই।”

পরে সুনীতাকে অব্যাহতি দিয়ে বিজেপি মহিলা মোর্চার কেন্দ্রীয় সভানেত্রী বিজয় রাহাতকর বলেছেন, এ ধরনের মন্তব্য কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না।

( তথ্যসূত্র : দেশ রুপান্তর)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!