আবুতোরাবে স্কুল ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্চিত

আবুতোরাবে স্কুল ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্চিত

নিজস্ব প্রতিবেদক :::

মিরসরাই উপজেলার শতবর্ষী আবুতোরাব বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর হাতে শিক্ষক লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সাইদুল ইসলামের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক রতন কুমার দাস। শনিবার (৩১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টায় বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী স‚ত্রে জানা যায়, বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নারিকেল গাছ থেকে ডাব পাড়তে দেখে ওই শিক্ষক তাকে বকাঝকা করে। একপর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী শিক্ষককে হুঁশিয়ারি দিলে শিক্ষক তাকে ডেকে এনে চড়-থাপ্পর দিতে চাইলে ওই শিক্ষার্থী ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষককে ঘুষি লাথি মারে। একপর্যায়ে অন্য শিক্ষকরা এগিয়ে এলে সে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্তভোগী শিক্ষক রতন কুমার দাস জানান, ছেলেটি নারিকেল গাছ থেকে ডাব পাড়তে দেখে আমি তাকে ডেকে বলি স্কুল তোমার, স্কুলের আশেপাশে ভালোমন্দ দেখার তোমাদেরই দায়িত্ব। সেটা যদি তোমরাই নষ্ট করো তবে রক্ষা করবে কে? তোমাকে তো শাস্তি দেয়া দরকার। আমি হাত উঠাতে সে আমার উপর চড়াও হতে থাকে। একপর্যায়ে সে আমাকে লাথি মারে এবং আমার চশমাও ভেঙ্গে ফেলে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মর্জিনা আক্তার বলেন, সাইদুল ইসলাম সহ আরো কিছু দুষ্ট প্রকৃতির ছেলে আছে। দশম শ্রেণীর ২জন নবম শ্রেণীর সাইদুল এবং অষ্টম শ্রেণীরও আছে। এরা স্কুলে সব সময় ভাংচুর করে। বাথরুমে ভাংচুর, ফ্যান, জানালার গ্লাস সহ বিভিন্ন কিছু ভাংচুর করেছে। গতকাল ডাব পাড়তে দেখে আমাদের সহকারী প্রধান শিক্ষক তাকে সতর্ক করতে গেলে ওই শিক্ষার্থী উল্টো উনার গায়ে হাত তুলে। এর প্রেক্ষিতে স্কুল কমিটিকে বিষয়টি অবহিত করলে জরুরী সভার মাধ্যমে তাকে বহিস্কার করা হয়।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এম আলাউদ্দিন বলেন, এটি আসলে একটি অনাকাঙ্গিত ঘটনা। যা সত্যি দুঃখজনক। আমারা (স্কুল কমিটি) তাৎক্ষণাৎ বসে আলোচনার মাধ্যমে ওই শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছি ও এমন ঘটনা যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে বিষয়ে সকলকে সতর্ক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!