আজ যে শিশুটিকে ধর্ষন করেছে সে বড় হয়ে হয়তো একজন রত্নগর্ভা মা হতে পারতো

আজ যে শিশুটিকে ধর্ষন করেছে সে বড় হয়ে হয়তো একজন রত্নগর্ভা মা হতে পারতো

শাহরিয়ার হোসাইন চৌধুরী সিজান :::

পৃথিবীর প্রত্যেক নারীই এক এক জন মা। তাঁর বয়স যতই হোক, তাঁর সন্তান থাকুক বা না থাকুক, সে একজন মা। কিন্তু এই কথাটা অনেকেই মনে রাখে না। কারনে অকারণে তাকে বিভিন্ন স্থানে হেয় প্রতিপন্ন হতে হয়। কারন সে নারী, তার দেহবল কম। কিন্তু বর্তমান সভ্যতা শুধুমাত্র দেহবল দ্বারায় সৃষ্টি হয়নি। তার সঙ্গে রয়েছে মানুষের অসীম ধৈর্য্য ও অধ্যবসায়। নারীর দেহবল কম হলেও তার রয়েছে অসীম ধৈর্য্যশীলতা। সভ্যতার শুরু হয়েছিলো কিন্তু নারী হতেই। তারাই প্রথম কৃষি কাজের সূচনা করে। তাদের এতো অবদানের পরেও তাদের একমাত্র দুর্বলতা হলো তাদের শরীরের আকর্ষনীয় গঠন। যা কিছু চরিত্রহীন পুরুষের লালসার কারন হয়ে দাঁড়ায়। এই কারনে নারীদের ধর্ষনের শিকার হতেহয়। তাদের কুনজর হতে ছোট শিশুরাও বাচতে পারে না। কারন তারা তাদের কামোদ্দীপনায় ভুলে যায় এরা প্রত্যেকেই এক এক জন মা। তারা এটা চিন্তা করে না যে তাদের জন্মের আগেই যদি কেউ তাদের মা কে ধর্ষন করে হত্যা করতো তাহলে তো তারা নিজেরাই জন্ম নিতে পারতো না। আজ যে শিশুটিকে সে ধর্ষন করেছে, সে বড় হয়ে হয়তো একজন রত্নগর্ভা মা হতে পারতো। তার গর্ভের সন্তান বড় হয়ে দেশের অগ্রগতিতে অবদান রাখতে পারতো। কিন্তু চরিত্রহীন পুরুষরা তো তা হতে দেবে না, কারন তাদের রয়েছে অসীম কাম লালসা। আর তা গড়ে ওঠে এই অবলা নারীদের দুর্বলতা কে কেন্দ্র করে। তীব্র নিন্দা জানাই এসব কাপুরুষদের প্রতি। সরকার নারীদের নিরাপত্তার ব্যাপারে আরো সচেতন হতে হবে।
‘নিজের চিন্তাধারার পরিবর্তন করুন, জীবন বদলে যাবে’

শিক্ষার্থী, চট্টগ্রাম মডেল কলেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!